গর্ভবতী হওয়ার কতদিন পর বমি হয়

গর্ভবতী হওয়ার কতদিন পর বমি হয়

গর্ভবতী থাকাকালীন বমি বমি ভাব ও বমি হওয়া স্বাভাবিক একটি বিষয়। প্রায়ই সকল নারীদের এই সমস্যা হয়ে থাকে। গর্ভবতী হলে এটি খুবই সাধারণ বিষয়। গর্ভবতী হওয়ার কতদিন পর বমি হয় সদ্য বিবাহিত মহিলারা অনেকেই এটি জানেন না। তাদের জন্য আমাদের আজকের আর্টিকেলটি।

গর্ভবতী হওয়ার লক্ষণ গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি লক্ষণ হচ্ছে বমি হওয়া ও বমি বমি ভাব হওয়া। গর্ভবতী হলে শরীরে ইস্ট্রোজেন ও প্রোজেস্টেরন হরমোন বৃদ্ধির ফলে এমনটা হয়ে থাকে।

গর্ভবতী হওয়ার কতদিন পর বমি হয়

সকল গর্ভবতী মহিলার স্বাস্থ্যগত দিক, হরমোনাল উপাদান ও শারীরিক বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য একই ধরনের নয়। তাই সকল মহিলার একই সময়ে বমি হবে এমনটা নয়।

মহিলা ভেদে বমি বমি ভাব হওয়ার সময়ের মধ্যে পার্থক্য দেখা দেয়। অনেকেই গর্ভবতী হওয়ার কিছুদিনের মধ্যে বমি বমি ভাব শুরু হয় আবার অনেকের দেরিতে শুরু হয়।

বিশেষ করে যে সময়ে গর্ভবতী মহিলাদের বমি বমি ভাব ও বমি হয়ে থাকে তা হচ্ছে-

গর্ভবতী হওয়ার ৭/১৪ দিনের মধ্যে 

গর্ভবতী হওয়ার ১ম ও ২য় সপ্তাহের লক্ষণ গুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে বমি বমি ভাব ও বমি হওয়া। প্রায়ই ৮০ শতাংশ মহিলা গর্ভবতী হওয়ার প্রথম সপ্তাহ শেষ হওয়ার পরেই অন্যান্য লক্ষণগুলোর সাথে বমি বমি ভাব ও বমি শুরু হয়।

গর্ভবতী হওয়ার ৪র্থ হতে ৭ম সপ্তাহের মধ্যে 

আপনি যদি প্রেগন্যান্সি টেস্ট করিয়ে নিশ্চিত হয়ে থাকেন যে আপনি গর্ভবতী তাহলে আপনার ৪র্থ হতে ৭ম সপ্তাহের মাঝে বমি শুরু হবেই।

গর্ভবতী হওয়ার শুরুতে যে সকল মহিলার বমি হয়ে থাকে না তাদের ৪র্থ হতে ৭ সপ্তাহের মাঝে বমি শুরু হয়।

গর্ভবতী হলে বমি হবে স্বাভাবিক তবে কখন বমি বমি ভাব ও বমি হওয়া শুরু হবে এমন নির্দিষ্ট কোন সময় নেই। সাধারণত সকল মহিলাদের গর্ভবতী হওয়ার ৭ সপ্তাহের মধ্যেই বমি বমি ভাব ও বমি হওয়া শুরু হয়।

গর্ভবতী হওয়ার কতদিন পর বমি হয় সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন ও সেগুলোর উত্তর

গর্ভবতী থাকাকালীন অনেক মহিলা অনেক ধরনের বিষয় জানতে চান। তেমনই কিছু জরুরী প্রশ্ন ও সেগুলোর উত্তর জেনে আসি।

১. গর্ভাবস্থায় কত মাস পর্যন্ত বমি হয়?

বেশীরভাগ মহিলাদের ৩ হতে ৪ মাসের আগেই বমি বমি ভাব ও বমি হওয়া কমে যায়। কিছু মহিলা এমনও রয়েছে যাদের পুরো গর্ভকালীন সময় বমি হয়ে থাকে। তাই গর্ভাবস্থায় কত মাস বমি হবে এমনটি নিশ্চিত করে কখনোই বলা সম্ভব না।

২. গর্ভাবস্থায় বমি হওয়া কি ভালো?

গর্ভাবস্থায় বমি হওয়া স্বাভাবিক একটি বিষয়। প্রায়ই সকল মহিলার গর্ভাবস্থায় বমি হয়ে থাকে। তবে বমির পরিমাণ যদি খুব বেশী হয়ে থাকে (কোন কিছু খেলেই বমি) তাহলে ডাক্তারের কাছে যেতে হবে।

৩. গর্ভাবস্থায় বমি হলে কি গর্ভের সন্তানের ক্ষতি হবে?

গর্ভাবস্থায় বমি হওয়া স্বাভাবিক। এতে গর্ভের সন্তানের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। বমির পরিমাণ অনেক বেড়ে গেলে গর্ভবতীর ও গর্ভের সন্তান উভয়ের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনটা হলে অবশ্যই ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

শেষ কথা

গর্ভবতী হওয়ার কতদিন পর বমি হয় এমনটি নির্দিষ্ট করে কখনোই বলা সম্ভব নয়। একেকজনের একেক সময়ে বমি হয়ে থাকে। বেশীরভাগ মহিলাদের গর্ভবতী হওয়ার ২য় সপ্তাহের পরপরই বমি হতে শুরু করে। অনেকের আবার গর্ভবতী হওয়ার দু’মাস পরে বমি শুরু হয়। বমি কখন শুরু হবে, কত মাস পর্যন্ত বমি হবে এই ধরনের বিষয়গুলো নির্দিষ্ট করে কখনোই বলা সম্ভব নয়।